ভারতের সেরা ১০টি চোখের মেকআপ – Top 10 Best Eye Makeup In India

মেকআপ  করতে কার না ভালো লাগে। তার মধ্যে যেটা সব থেকে  Attractive সেটা হল চোখের মেকআপ। চোখের মেকআপ আপনি কেমন করছেন, তার উপর নির্ভর করবে আপনার বাকি মুখের মেকআপ। তাই চোখের মেকআপ করার সময় ভাল করে জেনে নিতে হবে কি দিয়ে মেকআপ করছেন আর কিভাবে করছেন। আজ আমরা জেনে নেবো যে ভারতের সেরা ১০টি চোখের মেকআপ প্রোডাক্ট এর ব্যাপারে। সময় নষ্ট না করে সরাসরি চলে যাবো আমাদের মূল পর্বে।

1. মেবেলিন কাজল – Maybelline Colossal Kajal

যে কোনও ভারতীয় মহিলার সৌন্দর্যের মধ্যে অন্যতম অংশ হল এই চোখের পারফেক্ট মেকআপ তাও আবার সাপ্তহিক প্রোডাক্ট দিয়ে। সত্যি কথা বলতে কি চোখ হল এমন সুক্ষ জিনিস তার সাথে কোনো মতেই ছেলেখেলা করা যাবে না। ২০১১ সালে প্রথম বাজারে আসে মেবেলিন কলোসাল কাজল । আর ভারতীয় বাজারে একটি দারুন উত্সাহ তৈরি করেছিল এই প্রোডাক্ট টি। এটি এখনই ভারতীয় বাজারে সর্বাধিক জনপ্রিয় কাজল যার কোনো বিকল্প নেই। এটি বেশ কার্যকর এবং নামের এতে সাথে কাজ টাও দারুন করে নিজের গাম্ভীর্যের সাথে।  এটি জেট কালো, তীব্র,এবং ছয় ঘন্টারও বেশি সময় ধরে আমার চোখে পড়ে। এটি ওয়াটারলাইনের পাশাপাশি চোখের পাতা উভয়ই ব্যবহার করা যেতে পারে। তবে একটা কথা মাথায় রাখতে হবে যে এই প্রোডাক্ট এর টেক্সচারটি বেশ ক্রিমযুক্ত এবং এটি শীতল অর্থাৎ ঠান্ডা জায়গায় সংরক্ষণ করা উচিত অন্যথায় এটি গলে যেতে পারে ।

2. লাকমে আইকোনিক কাজল – Lakme Eyeconic Kajal

লাকমে কোম্পানি আমাদের সকলের কম বেশি জানা আছে। আর মজার জিনিস হচ্ছে এই ল্যাকমে আইকোনিক কাজল প্যাকেজিং এবং এর রঙটি খুব আকর্ষণীয়। যেটা একবার দেখলে মন ভোরে যায়। শুধু মন ভোরে যায় সেটা না কাজটাও ভালোই করে। এটি গভীর কালো এবং ধূলাবালি এবং আপনার বাজেট মুক্ত এবং দশ ঘন্টা ধরে বজায় থাকে। এটি স্টিং বা চুলকায় না আবার জ্বালাও করে না। এটি ডার্মাটোলজিকালি পরীক্ষিত বলে দাবি করা হয়। কাজলটি মসৃণ এবং কোনও টাগিং বা টান ছাড়াই চোখেচমক দেয়।

3. মেবেলাইন আই লাইনার – Maybelline Eye Liner

আই লাইনার এর মধ্যে খুব জনপ্রিয় মেবেলাইন এর আই স্টুডিও। এটি একটি টেকসই ড্রামা জেল লাইনার ছোট টব এবং সাথে একটি বিশেষভাবে ডিজাইন করা ব্রাশ থাকে । এই লাইনারগুলির টেক্সচারটি খুব ক্রিমযুক্ত এবং মসৃণ এমনকি প্রয়োগের সাথে তীব্র লাইন দেয়। এটি তরল আইলাইনারের অনুরূপ, আর এটি দ্রুত শুকিয়ে যায় এবং সারা দিন ধরে থাকে। এটি সহজেই মিশে যায় এবং আপনার চোখকে সুন্দর করে তুলতে যথেষ্ট সাহায্য করে।

4. ফেস লম্বা আইলাইনার্স – Faces Long wear Eyeliners

যে যাই বলুক না কেন সত্যি কথা বলতে পেন্সিল আইলাইনার্স হল একটি মেয়ের অহংকারের প্রধান বিষয় এবং এটি প্রাথমিক ভাবে যারা খুব সহজেই সরলরেখা আঁকতে অসুবিধা মনে করেন তাদের পক্ষে ভাল। সব থেকে বোরো কথা ফেস লং ওয়্যার আই পেন্সিলগুলি ইন্ডিয়ান মার্কেটের অন্যতম জনপ্রিয় পেন্সিল এবং এটি সবাই পছন্দ করে। তাদের মধ্যে বেছে নিতে হবে যে শেডগুলি বেশি ভালো আর বেশি চাহিদা রয়েছে। যেমন: বেগুনি, বন সবুজ, একোয়া ব্লু, গ্রে, মেটাল ব্রাউন, সলিড ব্রাউন, ফিরোজা নীল, সলিড ব্ল্যাক, স্পার্কল ব্ল্যাক, ডার্ক গ্রিন এবং নেভি ব্লু ইত্যাদি ইত্যাদি। এই পেন্সিলগুলির রঙ প্রদত্তটি আশ্চর্যজনক এবং সমস্তগুলি অত্যন্ত রঞ্জক। পেন্সিলগুলি নরম এবং ক্রিমযুক্ত এবং একটি পরম স্মুড প্রুফ ফিনিস দেয়। তারা চোখের পাতায় গড়ে ছয় ঘন্টা ধরে থাকে।  এই চোখের পেন্সিলগুলির মধ্যে আপনার কমপক্ষে একটি চেষ্টা করা উচিত। ব্যবহার করার পর কেমন লাগছে কমেন্ট করে জানাবেন।

5. ল্যাকমে আই আর্টিস্ট আইলাইনার পেন – Lakme Eye Artist Eyeliner Pen

আমাদের আরেকটি অসাধারণ জিনিস যেটা হল ল্যাকমে আই আর্টিস্ট, টিপ লাইনার। মেয়েদের বা যে কোনো আর্টিসদের চোখের পাতায় সুনির্দিষ্ট প্রয়োগের জন্য একটি অনুভূত টিপ আইলাইনার পেনটি তৈরি করা হয়েছে। ল্যাকমে আই আর্টিস্ট ব্যবহার করা অত্যন্ত সহজ। অনুভূত টিপ ডিজাইনটি এতটাই অনায়াসে এবং সহজেই নিয়ন্ত্রণ করা হয় যে মাত্র একটি স্ট্রোকের মধ্যেই আইলাইনারের সঠিক পরিমাণ বিতরণ করা হয়। লাইনটি আরও পাতলা বা ঘন, তীক্ষ্ণ বা উইংসযুক্ত, লম্বা বা সংক্ষিপ্ত এবং আরও কিছু হতে পারে।

6. মেবেলাইন হাইপার লাইনার – Maybelline Hyper glossy Liquid Liner

এই প্রোডাক্ট টি ২০১২ সালের ডিসেম্বরে মাসে চালু হওয়া মাইবেলিন হাইপার গ্লোসি লিকুইড আই লাইনার তরল আই লাইনার পরিবারের সর্বশেষতম সংযোজন, চূড়ান্তভাবে ভারতীয় চোখের মেকআপ পণ্যগুলিতে। এটি একটি লম্বা স্টিক সোহো কাছের বোতলে আসে। আর এর একটা সহজ ব্যাপার হলো ব্রাশটি অত্যন্ত পাতলা যা পাতলা রেখাগুলি আঁকতে সহজ করে বা সাহায্য করে।

7. এম.এ.সি আই শ্যাডো – M.A.C Eye Shadow

ভারতীয় বাজারে অন্যতম সেরা চোখের ছায়া হল এমএ.সি আই শ্যাডো।  এটি ভালো আর সমানভাবে প্রয়োগ করা যেতে পারে এবং ভালভাবে মিশে যায়।  আপনি হালকা এবং চকচকে শেডগুলির সাথে কিছুটা পড়ে যেতে পারেন তবে আপনি চাইলে এটি আই প্রাইমার দিয়ে ব্যবহার করা যেতে পারে। এই ছায়াগুলি চোখে গভীরতা এবং একটা সুন্দর মাত্রা যুক্ত করে এবং চোখের দিকে দৃষ্টি আকর্ষণ করে।

8. ইংলট ফ্রিডম সিস্টেম আই শ্যাডো – Inglot Freedom System Eye Shadow

আপনার চেহারা কি কোনও মাস্কারা ছাড়াই সম্পূর্ণ হতে পারে ? না একদম না। এমএএসি আই শ্যাডোর মতো, ইংলট আই শ্যাডো গুলিও রিফিল এবং প্যালেট গুলিতে পাওয়া যায়। আর এই কালার এর দেওয়া রঙ অনেক্ষন বজায় থাকে।

9. মেবেলিন কলসাল মাসকারা – Maybelline Colossal Mascara


আমাদের সমীক্ষায় বিপাশা বলে একটি মেয়ে যে কিনা ফিল্ম এর সাথে যুক্ত অর্থাৎ তিনি একজন অভিনেত্রীআরব তিনি বলেছেন যে – মেবেলিন কলসাল মাস্কারা হ’ল আমার এইচজি মাস্কারা। আমি এটি গত দুই বছর ধরে ব্যবহার করে আসছি এবং অন্য কোনও চেষ্টা করার প্রয়োজন অনুভব করিনি। এই মাস্কারা আমার এত কম স্পর্শকাতর ভরসা দেয় যা একটি বেশ ভালো ভলিউম এবং আমার ল্যাশগুলির চেহারা আরও তীব্র করে।  তবে সবার জন্য একটা কথা বলতে চাই যে – এটি মুছে ফেলা বেশ কঠিন এবং এটি সম্পূর্ণরূপে অপসারণ করতে আপনার একটি মেকআপ রিমুভারের প্রয়োজন হবে। আমি নিয়মিতগুলি ওয়াটারপ্রুফ তাই বেশি ব্যাবহার করি।তবে চিন্তার কিছু নেই। আপনি বিন্দাস ব্যবহার করতে পারেন।

10. মেটালিগ্লো আই প্রাইমার – Faces Metaliglow Eye Primer

আই প্রাইমার হ’ল একটি প্রসাধনী যা চোখের ছায়াগুলির প্রয়োগের আগে চোখের পাতার প্রলেপ দেওয়ার জন্য ব্যবহার করা হয় যাতে চোখের অংশটি একটি মসৃণ রূপ নেয়, এমনকি দীর্ঘ সময়ের জন্য চোখের পাতাতে রাখা যায়। তবে এটি যা দাবি করে তা হল – এটি চোখের ছায়াকে ক্রিজ এবং স্মাগিং থেকে বাধা দেয় এবং ছায়ার রঙকে তীব্র করে তোলে। এটি কমপক্ষে আট ঘন্টা ধরে ছায়াকে অক্ষত রাখে। আর দারুন লাগে রাখতে।

Comments are closed.