অলিভ অয়েলের ব্যবহার ও উপকারিতা

আপনি কী জানেন অলিভ অয়েল(Olive oil) দিয়ে রূপচর্চা করার সঠিক উপায়? তাহলে আসুন জেনে নেয়া যাক রূপচর্চায় অলিভ অয়েলের দারুণ কিছু ব্যবহার সম্পর্কে। অলিভ অয়েল নাম তো শুনেছেন অনেকেই। আবার সাধারণ বাড়ির মানুষরা নাম হয়তো শোনেন নি বা জানেনও না এর কাজ কি ? খায় না মাথায় দেয়। সাধারণ মানুষ বলতে সত্যি কথা যদি বলি তাহলেই বলতেই হয় দাদা আর দিদিরা এই অলিভ অয়েল কিন্তু একটু উচ্চ বিত্তের বা মধ্য বিত্তের ( যদিও সংখ্যায় ও এক কম ) ব্যাবহারকার্য একটি প্রোডাক্ট। আসুন আমরা জেনে নি যে রূপচর্যায় অলিভ অয়েল কি কাজে লাগে।

নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে আমার এই chalokolkata.com এ স্বাগতম। আশা করি সবাই আপনারা ভালোই আছেন আর  সুস্থ আছেন। 

অলিভ অয়েলের উপকারিতা সম্পর্কে কমবেশি আমরা সবাই জানি। প্রতিদিনের জীবনে আমরা বিভিন্ন উপায়ে অলিভ ওয়েল ব্যবহার করে থাকি। রূপচর্চা থেকে শুরু করে স্বাস্থ্য পরিচর্যা ও রান্নায়ও এর ব্যবহার অতুলনীয়। আমরা জেনে নেবো একটা একটা করে এর উপকারিতা ও কাজ সম্পর্কে।

চুলের সৌন্দর্য

আপনি হয়তো জানেন না ঠিক কোন পর্যায়ে অলিভ অয়েলের ব্যাবহারে আপনি আপনার চুলের গঠন সব দিক থেকে সাহায্যকরতে পারে। হ্যা আপনি নিশ্চিন্তে চুলের যত্নে অলিভ অয়েল ব্যবহার করতে পারেন। একটি ডিম নিয়ে তাতে ২ চামচ অলিভ অয়েল মিশিয়ে ভালমত ফেটিয়ে নিন তারপর পেস্টটি আপনার চুলে লাগিয়ে নিন। বেশিক্ষন থাকতে হবে না মাত্র ২০ থেকে ৩০ মিনিট পর হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। দেখবেন আপনার চুল উজ্জ্বল হবে। সপ্তাহে একবার করে করবেন। খুউব সমস্যা থাকলে ১০ দিনে একবার করলেও হবে। মানে মাসে ৩ বার।

পায়ের যত্নে

পায়ের যত্নে অলিভ অয়েলের ব্যবহার অতুলনীয়। প্রতিদিনই পায়ের উপর আমাদের অনেক চাপ পড়ে, তাছাড়া অনেকেই হিল ব্যবহার করে থাকেন তখন পায়ে ব্যথা হয়। তাই আরাম পেতে ও পায়ের যত্নে ১ চামচ লবণ নিয়ে তাতে পরিমাণ মত অলিভ ওয়েল মিশিয়ে স্ক্রাব তৈরি করুন ও পায়ে ম্যাসাজ করুন। পুরো পা করবেন কিন্তু গোড়ালির ওপর বেশি ভালো করে স্ক্র্যাব করলে পা ফাটা থেকে মুক্তি তো পাবেনই তার সাথে পাবেন সম্পূর্ণ কোমল গোড়ালি যুক্ত পা।

ঠোঁটের যত্নে

ঠোঁটের যত্নে অলিভ অয়েলর কোনো তুলনা নেই বললেই চলে। লিপবাম, ভেসলিন তো আমরা অনেকেই ঠোঁটে ব্যবহার করি। কিন্তু এর বদলে যদি অলিভ অয়েলও ব্যবহার করতে পারি। রাতে ঘুমানোর আগে পরিষ্কার তোয়ালে দিয়ে ঠোঁট পরিষ্কার করে তারপর ঠোঁটে অলিভ ওয়েল লাগান। তাছাড়া ঠোঁটে লিপস্টিক(Lipstick) লাগানোর আগেও সামান্য অলিভ অয়েল দিয়ে নিতে পারেন, ঠোঁট নরম থাকবে। করে দেখুন হাতে নাতে ফলাফল। 

ওজন কমাতে

শরীরের ওজন( Weight Loss ) কমাতে আপনি অলিভ অয়েল খেতেও পারেন। সকালে নাস্তার আগে ২ চামচ অলিভ ওয়েল খেয়ে নিন, এতে আপনার হজম শক্তি বাড়বে। এবং নিয়মিত ব্যবহারে আপনার ওজন কমতে সহায়তা করবে।

শরীরে ও মুখের ত্বকে ম্যাসাজ করুন

ফেস ম্যাসাজের ব্যাপারে আমি বলবো ১০০ শতাংশ ভালো। এর থেকে ভালো আর কোন অয়েল কে বলবেন। কিভাবে করবেন ? হালকা গরম জল দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন, তারপর তুলাতে সামান্য অলিভ অয়েল লাগিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করুন। ১০-১৫ মিনিট পর গরম জলে তোয়ালে ভিজিয়ে তা দিয়ে মুখ পরিষ্কার করুন তারপর একটি শুকনো তোয়ালে দিয়ে মুখ মুছে ফেলুন। স্নান করার পর সামান্য জলের সাথে অলিভ ওয়েল মিশিয়ে নিন তারপর সারা শরীরে ম্যাসেজ করুন। দারুণ ময়েসচারাইজারের কাজ করবে। ৩ মাস করলেই দেখবেন আপনার মন ফুরফুরে হয়ে গেছে।

ত্বকের বলিরেখা দূর করতে

বন্ধুরা আমাদের সমাজে প্রত্যেক বয়স বৃদ্ধির সাথে সাথে আমাদের কপালে, চোখের পাশে ও নিচে চামড়ায় হালকা ভাঁজ দেখা দেয় যাকে আমরা অন্য ভাষায় বলিরেখা বলে থাকি আর এই বলিরেখা সরাতে ২ চামচ অলিভ অয়েলের সাথে সামান্য এলোভেরা (Elovera) জেল ( অরিজিনাল পাতা থেকে বের করা হলে বেশি ভালো হবে ) মিশিয়ে ত্বকে ম্যাসাজ করুন। ফল পাবেন।

মেকআপের সময়

নারী হোক বা পরুষ যখন সাজসজ্জা করেন তখন অনেকেই ফেস মেকআপ (Makeup) এর জন্য ফাউণ্ডেশন ব্যবহার করে থাকেন। কিন্তু আপনি যদি ফাউণ্ডেশন মুখে দেয়ার আগে তাতে ১-২ ফোঁটা অলিভ অয়েল মুখে দেন, তাহলে ফাউণ্ডেশন দেয়ার পর আপনার ত্বক খুব উজ্জ্বল দেখাবে। তবে এটা কেবল শুষ্ক ত্বকের জন্য প্রযোজ্য।

মেকআপ পরিষ্কার করতে

আমরা অনেক সময় অনেক কালচারাল কাজে বা অনেক কিছুর ক্ষেত্রে মুখে মেকআপ করে থাকি সে ছেলেই হোক বা মেয়েই হোক না কেন । মেকআপ করাটা ঠাপ্তা স্বাভাবিক ঠিক ততটাই অস্বাভাবিক যখন মেকআপ তুলতে হয়। অনেকেই মুখ থেকে মেকআপ তুলতে রীতিমত ত্বকের সাথে রীতিমতো যুদ্ধ করে । কিন্তু অলিভ অয়েল দিয়ে খুব সহজেই মুখের সমস্ত মেকআপ তুলে নেয়া যায়। তাই যখন মেকআপ তুলবেন তখন কটন বল নিয়ে তাতে সামান্য অলিভ অয়েল নিয়ে আস্তে আস্তে ম্যাসাজ করুন, দেখবেন সমস্ত মেকআপ উঠে যাবে। আর আপনার ত্বকের কোনো রুম ক্ষতিও হবে না।

 শেষ কথা 

এখানে শেষ কথা বলতে একটাই কথা আপনাদের বলবো যে – ওপরের প্রত্যেকটি লেখা দায়িত্ব নিয়ে বলতে পারি মারাত্মক ভালো ফলাফল দেবে। আমি নিজেও একজন আর্টিস্ট। তাই ছেলে হয়েও আমি জানি এর উপকার। হ্যা ঠিক ধরেছেন আমি নিজেই ব্যাবহার করে থাকি। আপনিও করুন ভালো থাকুন।

Comments are closed.