ত্বকের যত্নে জাফরানের ব্যবহার – Saffron Uses Skin Care In Bengali

0

আগেই বলে নিচ্ছি কেননা আপনারা পরে ভুলে যান। বাকি বন্ধুদের সাহায্যের উদ্দেশে লাইক আর শেয়ারটা  মনে করে করে দেবেন। শুরু করছি আজকের বিষয় –


নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে আমার এই chalokolkata.com এ স্বাগতম।   আশা করি সবাই আপনারা ভালোই আছেন আর  সুস্থ আছেন। বন্ধুরা আজ আমি আপনাদের এমন একটা জিনিসের নাম আলোচনা করবো যেটা আমার আপনার বা অনেকেরই বাড়িতে আছে। সেটা হলো – ত্বকের যত্নে জাফরানের ব্যবহার, আসল জাফরান চেনার উপায়, জাফরান কিভাবে খেতে হয় ইত্যাদি ইত্যাদি।

বন্ধুরা স্যাফরন বা জাফরানের সঠিক কিছু ব্যবহার আছে। আসুন স্টেপ বাই স্টেপ জেনে নেই এর সঠিক ব্যবহার।

1. ব্রণ দূর করতে

প্রথমে জাফরান আর কাঁচা দুধ মিশিয়ে দুই ঘন্টা রেখে দিন।

এবার মিশ্রণটি ফেইসে লাগিয়ে একটু ম্যাসাজ করে ২০ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন।

সপ্তাহে ১-২ ব্যবহার করলে ব্রণের সমস্যা দূর হয়ে যাবে।

2. ড্রাই স্কিনের জন্য মাস্ক

একটু অলিভ অয়েলের সাথে টক দই এবং জাফরান মিশিয়ে রাতের বেলা ফেইসে লাগিয়ে ১৫-২০ মিনিট রেখে দিন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

মিল্ক পাউডার, জাফরান এবং গোলাপজল ভালো করে মিশিয়ে একটি প্যাক বানিয়ে নিন। এবার এই প্যাকটি ফেইসে লাগিয়ে ১৫ মিনিট রেখে ভালো করে ধুয়ে নিন।

এই প্যাক দু’টি ত্বকের শুষ্কতা দূর করার পাশাপাশি ত্বকের সেনসিটিভিটি, র‍্যাশ, এবং স্কিনের চামড়া ওঠা দূর করবে।

3. গ্লো ফেইস মাস্ক  

প্রথমে একটি বাটিতে ১ চামচ চিনি, ৩ চা চামচ কাঁচা দুধ, ৪-৫টি জাফরান আর একটু অলিভ অয়েল ভালোভাবে মিশিয়ে নিন।

এবার মিশ্রণটি ঘার সহ পুরো ফেইসে ভালোভাবে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে একদিন ব্যবহারেই আপনি পাবেন উজ্জ্বল ত্বক

4 . জাফরান ও চন্দন মাস্ক

একটি পাত্রে ৪ চা চামচ দুধের মধ্যে জাফরান দিয়ে জাফরানের হলুদ রঙ আসা পর্যন্ত অপেক্ষা করুন।

হলুদ রঙ আসলে এর সাথে চন্দন মিশিয়ে ভালো করে পেস্ট বানিয়ে পুরো ফেইসে লাগিয়ে রাখুন ২০ মিনিট।

এই মাস্কটি স্কিনকে এক্সফোলিয়েট (Exfoliate) করে পরিষ্কার করবে এবং ত্বক ভেতর থেকে উজ্জ্বল করবে। এটি সপ্তাহে একদিন ব্যবহার করলেই কার্যকরী ফল পাওয়া যাবে।

5. জাফরান ও আমন্ড মাস্ক

প্রথমে আমন্ড এবং জাফরান একসাথে ব্লেন্ড করে নিন।

এবার এতে অল্প একটু মধু মিশিয়ে ফেইসে ভালোভাবে লাগিয়ে নিন। শুকিয়ে গেলে হালকা গরম জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

আমন্ড এর ন্যাচারাল অয়েল আর জাফরানের এন্টি অক্সিডেন্ট মিলে স্কিনের ডেড সেলস, ডার্ক সার্কেল, ব্ল্যাক স্পট দূর করে স্কিনকে সফট আর হেলদি করে।

জেনে নিলেন জাফরানের কার্যকারিতা ও উপকারিতা সম্পর্কে। এটি ব্যবহার করে আপনি ত্বক ও চুলের পাশাপাশি স্বাস্থ্যেরও যত্ন নিতে পারবেন। নিয়মিত নিজের যত্ন নিন সুস্থ ও সুন্দর থাকুন।

1. জাফরান এবং চন্দনের প্যাক

যা লাগবে- ২-৩ দানা জাফরান, ১ চা চামচ চন্দনের গুঁড়া, ২ টেবিল চামচ কাঁচা দুধ।

চন্দন, কাঁচা দুধ, জাফরান ভাল করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। পেষ্ট যেন ঘন হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। এই প্যাকটি মুখে ভাল করে ম্যাসাজ করে লাগান। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করুন ভাল ফলাফল পাওয়ার জন্য। এই প্যাকটি তৈলাক্ত ত্বক এবং সেনসিটিভ ত্বকের জন্য অনেক বেশি কার্যকরী। এটি রোদে পোড়া দাগ, ব্রণের দাগ দূর করে থাকে। এছাড়া ত্বক ভেতর থেকে উজ্জ্বল করে থাকে। নিয়মিত ব্যবহারে এটি ব্রণ হওয়ার প্রবণতা কমিয়ে থাকে।

2. জাফরান এবং মধুর প্যাক

যা লাগবে- ৪-৫ দানা জাফরান, ২-৩ টেবিল চামচ মধু জাফরান এবং মধু ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। মুখে ভাল করে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। মধু ও জাফরানের প্যাক ত্বকের কালো দাগ দূর করে। এর পাশাপাশি বলিরেখা পড়া থেকে ত্বককে রক্ষা করে।

3.  জাফরান এবং কাঁচা দুধ

যা লাগবে- ৫ দানা জাফরান, ১/২ কাপ কাঁচা দুধ জাফরান এবং কাঁচা দুধ মিশিয়ে ২-৩ ঘন্টা রাখুন। এই প্যাক ভাল করে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন। এটি ত্বক ভিতর থেকে উজ্জ্বল করে থাকে। জাফরানে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান আছে যা ব্রণ দূর করে ত্বকের কালো দাগ দূর করে থাকে।

জাফরান এবং কাঁচা দুধের ফেসপ্যাকঃ

৫ দানা জাফরান এবং ১/২ কাপ কাঁচা দুধ মিশিয়ে ২-৩ ঘন্টা রেখে দিন। এই প্যাক ভাল করে মুখে লাগান। ১৫ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। সপ্তাহে দুইবার ব্যবহার করুন। এটি ত্বক ভিতর থেকে উজ্জ্বল করে থাকে। জাফরানে অ্যান্টি ব্যাকটেরিয়াল উপাদান আছে যা ব্রণ দূর করে ত্বকের কালো দাগ দূর করে থাকে।

জাফরান এবং মধুর প্যাক

জাফরান এবং মধু ভাল করে মিশিয়ে প্যাক তৈরি করে নিন। মুখে ভাল করে লাগান। ১৫-২০ মিনিট পর শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

জাফরান এবং চন্দনের প্যাক

চন্দন, কাঁচা দুধ,  জাফরান ভাল করে মিশিয়ে পেস্ট তৈরি করে নিন। পেষ্ট যেন ঘন হয় সেদিকে লক্ষ্য রাখবেন। এই প্যাকটি মুখে ভাল করে ম্যাসাজ করে লাগান। শুকিয়ে গেলে ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন। এটি সপ্তাহে ২ থেকে ৩ বার ব্যবহার করুন ভাল ফলাফল পাওয়ার জন্য।

সতর্কতা

বাজারে অনেক নকল জাফরান কিনতে পাওয়া যায়। জাফরান কেনার আগে যাচাই করে কিনবেন।

টিপস

এক গ্লাসে দুধে কয়েক দানা জাফরান দিয়ে দিন। এটি প্রতিদিন পান করুন। এটি আপনার ত্বক ভেতর থেকে উজ্জ্বল করার সাথে সাথে ত্বককে সুন্দর  করে তুলবে।



Leave A Reply

Your email address will not be published.