কন্যা রাশি – Virgo in 2019

0

আগেই বলে নিচ্ছি কেননা আপনারা পরে ভুলে যান। বাকি বন্ধুদের সাহায্যের উদ্দেশে লাইক আর শেয়ারটা  মনে করে করে দেবেন। শুরু করছি আজকের বিষয় –


নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে আমার এই chalokolkata.com এ স্বাগতম।   আশা করি সবাই আপনারা ভালোই আছেন আর  সুস্থ আছেন। আজকের আলোচনার বিষয়  কন্যা রাশি 2019 । আপনি যদি কন্যা রাশি হন তাহলে আপনি জেনে নিন আপনার ২০১৯ কেমন যাবে। নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে অনেক অনেক ভালোবাসা ও স্বাগতম আমার এই পেজ এ। আশা করবো আমার প্রত্যেক লেখা আপনাদের অনেকটাই উপকার করতে সাহায্য করবে ও আশা করবো ভালো লাগবে আপনাদের। ভালো লাগলে আপনারা সবাইকে শেয়ার করতে ভুলবেন না। আমরা  দেখে নেবো আজকে কন্যা রাশি ২০১৯ কেমন যাবে।

পাঠক-পাঠিকাদের অবগতির জন্য বলি, এখানে যে প্রতিকার দেওয়া হল তা সারা জীবনের জন্য নয়। সাময়িক অস্বস্তিকর সময়ের হাত থেকে খানিকটা স্বস্তি পেতে। যখন সময়টা ধীরে ধীরে শুভ হয়ে উঠবে, তখন প্রতিকার না করলেও চলবে। করলে কল্যাণ কিছু হবে, না করলে ক্ষতি কিছু হবে না। প্রতিকারটা জানুয়ারি থেকে ডিসেম্বর – এক বছরের জন্য করতে পারেন।

রাশি চক্রের ষষ্ঠ রাশি কন্যা। এই রাশির অধিকর্তা গ্রহ বুধ। বুধ প্রধান ব্যক্তি উদ্যমশীল, হাস্যকৌতুক ও আনন্দ প্রিয় হয়। স্বভাব চরিত্র সহজে বোঝা যায় না। আইনবিদ্যা, চিকিৎসা, রসায়ন বিজ্ঞান, গণিত ইত্যাদিতে প্রায়ই পটু হয়ে থাকে। ব্যবসা বাণিজ্যে উন্নতি করে। একা স্বাধীন ভাবে ব্যবসা করার চেয়ে যৌথ ব্যবসায় উন্নতি করে। সকলের জন্য চিন্তা করে তবে নিজের স্বার্থ ভাল বোঝে। মনের দু’টি পরপর বিপরীত ভাবের জন্য প্রায়ই উন্নতি ব্যাহত হয়। ব্যবসায়ী, প্রচারকর্তা, ওকালতি, এজেন্ট, জ্যোতিষী ইত্যাদি শুরু করলে জীবনে অবশ্যই উন্নতি করবে। এরা একা থাকতে ভালবাসে না। বন্ধুপ্রীতি অপরিসীম। কন্যা, মিথুন, মীনমেষ রাশির লোকের সঙ্গে বন্ধুত্ব বা বিবাহ শুভ। এরা খুব কর্তব্যপরায়ণ হয়ে থাকে। মন দৃঢ় রাখতে পারলে জীবন কুব সুখকর হবে।

প্রতিকারগুলো নিষ্ঠার সঙ্গে করলে ফল অবধারিত। অশ্রদ্ধা, অবিশ্বাস ও অভক্তিতে করলেও ফলের মার নেই। তবে ফল তাড়াতাড়ি না দেরিতে, তা নির্ভর করে ব্যক্তিগত জন্মকালীন সার্বিক গ্রহাবস্থানের উপর, যা বিশদ আলোচনা সাপেক্ষ।

এই রাশির অধিপতি গ্রহ বুধ। ভাবাবেগের রাশি। উক্ত রাশির জাতক জাতিকাদের মুখশ্রীতে প্রতিফলিত রয়েছে সৌম্যভাব। স্মৃতিশক্তির প্রখরতায় এরা অনেক বিষয়ই কণ্ঠস্থ করতে সমর্থ হয়। এদের চরিত্রের মধ্যে নির্মল নির্লোভ কমনীয়তা থাকে তাই খুব সহজেই শত্রুকে বশীভূত করতে সক্ষম হয়।

এই রাশির প্রেমাবেদন থাকে অতিমাত্রায়। বিপরীত লিঙ্গকে দ্রুত আকর্ষণ করতে পারে। বিবাহ প্রায়ই অসবর্ণ পরিচিতের মধ্যে হয়ে থাকে। সরলতার মধ্যে রয়েছে আত্মবিশ্বাস ও মানসিক সংযম। নিজ প্রচেষ্টা এবং অন্যের সহায়তা এ দুইয়ের মিলনে আসে প্রতিষ্ঠা। স্বভাবে বুধ তমোধর্মী তাই এ রাশি বৈরাগ্যকে আশ্রয় করে এগিয়ে চলতে চায় না। ভালোবেসে বিয়ে করলেও স্বামী ও স্ত্রী প্রায়ই মনোমতো হয় না। সংগীত সাহিত্য শিল্পের প্রতি আকর্ষণ যেন সহজাত।

এ বছর ভ্রাতৃস্থানীয় কারও মধ্যে কর্মক্ষেত্রে কমবেশি উন্নতি বা সুযোগ আসবে। অপ্রত্যাশিত যোগাযোগে কর্মক্ষেত্রের কিছু উন্নতি হবে। কোনও নতুন যোগাযোগ উৎসাহিত করবে। কোনও ঝুঁকির কাজে না গিয়ে সাধারণভাবে যেমন চলছে – তেমন ভাবে চলাই ভালো।

আয় ব্যয়ের মাত্রা প্রায় সমান থাকবে। মাঝে মাঝে বেশ ভালো আবার কখনও আর্থিক চাপ অস্বস্তি থাকবে অতিমাত্রায়। তবে অবস্থা যাই হোক না কেন, সারা বছর কাটবে সচ্ছলতায়। অর্থের অভাবটা হবে না।

স্বাস্থ্যের পক্ষে বছরটা অস্বস্তিকর। আঘাত ও কাটছেঁড়া, চোখ ও পেটটা প্রায়ই বড্ড বিব্রত করবে। স্বাস্থ্যের কারণে কিছু অর্থ নষ্টের যোগ। চাণক্যের কথায়, রোগ আর ঋণ পুষে রাখলে বাড়ে ছাড়া কমে না। যখন শরীর নিয়ে যে কষ্টই হোক না কেন, সঙ্গে সঙ্গে তা আরোগ্য লাভের চেষ্টা করা কর্তব্য।

এ বছর আর্থিক চাপ একটা থাকবে তবু তা কাটিয়ে উঠবেন। অধিকাংশ দিনগুলো কাটবে আনন্দের মধ্যে দিয়ে। বাড়িতে একাধিকবার কর্মানুষ্ঠান যেমন বিবাহ পৈতে অন্নপ্রাশন বা গৃহপ্রবেশ ইত্যাদি কোনও না কোনও মাঙ্গলিক কর্মানুষ্ঠান হবে। অপ্রত্যাশিত কিছু অর্থাগমযোগ। কোথাও না কোথাও বেড়াতে যাবে না। কোনও আত্মীয়ের কারণে অর্থব্যয় হবে। বিদ্যার্থীদের বিদ্যায় আশানুরূপ ফললাভে বাধা জন্মাবে। বিদ্যায় মনঃসংযোগের অভাব থাকবে অতিমাত্রায়।

প্রতিষ্ঠা জীবনে অকারণ শত্রুতার সম্মুখীন হতে পারেন তবে প্রকাশ্যে ও গুপ্তভাবে কেউই ক্ষতি সাধনে সমর্থ হবে না। যাদের দীক্ষা হয়নি, তাদের অনেকেরই সদগুরুর আশ্রয়লাভ হবে। আত্মীয়রা তেমন কাজে আসেনি কখনও, এ বছরও আসবে না। অনাত্মীয়দের সহায়তা লাভটা বরাবর কমবেশি হয়ে আসবে। ইচ্ছা বা অনিচ্ছায় সারা বছর বেশ কয়েকবার দেবালয় ভ্রমণ হবে সেটা কাছের কিংবা দূরের কোথাও।

কি করলে একটু ভালো থাকবেন

মহালক্ষ্মীর ফটো সংগ্রহ করুন। চার হাতের মধ্যে দু-হাতে পদ্ম আর এক হাতে টাকা ঝরছে। ছবিতে হাতির মাথা থাকলে চলবে না। উপোষের প্রয়োজন নেই। প্রতিদিন স্নানের পর যে কোনও পাঁচটা সাদা ফুল চরণে দিয়ে তিনবার স্পর্শপ্রণাম করুন। একটু জলমিষ্টি দিলে ভালো, না দিলে ক্ষতি কিছু হবে না। কোনও নিয়ম নেই। কাজটা চলতে থাকলে কর্মজীবন, সংসার ও প্রতিষ্ঠাজীবনে চলার পথের বাধা অস্বস্তির হাত থেকে মুক্তি পাবেন।

কি রঙের পোশাক পরবেন 

কন্যা রাশির জাতক জাতিকাদের জন্য হালকা আকাশই, হালকা সবুজ, হালকা হলুদ আর সাদা পোশাক অত্যন্ত শুভদায়ক। বাড়িঘরের রঙের মধ্যে থেকে একটা পছন্দ করতে পারেন

শুভ রং – সবুজ

শুভ দিক – পশ্চিম

শুভ সংখ্যা – ৫৮

শুভ রত্ন – পান্না



Leave A Reply

Your email address will not be published.