টমেটোর উপকারিতা কি কি ও টমেটোর রসের উপকারিতা

আগেই বলে নিচ্ছি কেননা আপনারা পরে ভুলে যান। বাকি বন্ধুদের সাহায্যের উদ্দেশে লাইক আর শেয়ারটা  মনে করে করে দেবেন। শুরু করছি আজকের বিষয় –


নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে আমার এই chalokolkata.com এ স্বাগতম।   আশা করি সবাই আপনারা ভালোই আছেন আর  সুস্থ আছেন। আজ আমি  আপনাদের বলবো যে – টমেটোর উপকারিতা কি কি ও টমেটোর রসের উপকারিতা আমরা আরও জানবো যে – টমেটোর অপকারিতা, টমেটো তে কি ভিটামিন আছে, টমেটো চারা উৎপাদন,  টমেটো দিয়ে ফেসিয়াল

বন্ধুরা আমাদের ত্বক শীতকালে অনেকটাই শুষ্ক হয়ে যায়. মুখে ময়েশ্চারাইজার বা তেল প্রয়োগ করলে আপনার মুখ তৈলাক্ত ও চ্যাটচ্যাটে হয়ে যায়। আমাদের মধ্যে অনেকেরই তৈলাক্ত ত্বক আছে আর এই সব প্রসাধন মুখে মাখলে আরও অবস্থার অবনতি হয়। এই রকম সময়ে আপনার তৈলাক্ত ত্বকের যত্ন নিতে কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি চেষ্টা করতে পারেন।

অনেক প্রাকৃতিক উপাদান আছে যা আপনি তৈলাক্ত ত্বকের চিকিৎসার জন্য ব্যবহার করতে পারেন।  উদাহরণস্বরূপ, টমেটো হল সেরা উপাদান যা দিয়ে তৈলাক্ত ত্বকের চিকিৎসা করা হয়। এটা অন্যতম প্রধান উপাদান যা প্রত্যেক রান্নাঘরে পাওয়া যায়। এছাড়া রান্নায় ব্যবহারের সাথে সাথে টমেটো সৌন্দর্য্য চর্চায় বেশ পরিচিত।  মুখের জন্য অনেক ঘরোয়া প্যাকে এটি ব্যবহার করা হয়ে থাকে।

বড় ছিদ্র সংকুচিত করে

বড় ছিদ্রে ধুলো বালি যাবার সম্ভবনা থাকে এবং তা থেকে সংক্রমণও হতে পারে|টমেটোর রস ত্বকের বড় ছিদ্র সংকুচিত করে উপকার করে।  টমেটোর রসের সাথে লেবুর রস মেশান এবং তাতে তুলোর পুটুলি ভিজিয়ে সারা মুখে প্রয়োগ করুন।

ব্রণ হ্রাস করে

এটি অত্যন্ত প্রচলিত ত্বকের সমস্যা যা টমেটো রসের ব্যবহারে উপকার পাওয়া যায়|টমেটোয় প্রাকৃতিক এসিড এবং ভিটামিন আছে যা স্বাভাবিকভাবেই ব্রণ হ্রাস করে। একটি টমেটো থেকে রস বের করে নিন এবং মুখের ওপর প্রয়োগ করুন|কুড়ি মিনিটের জন্য রেখে ঠান্ডা জল দিয়ে মুখ ধুয়ে ফেলুন।

তৈলাক্ত ত্বক ভালো রাখে

তৈলাক্ত ত্বক সত্যিই অস্বস্তিকর ও লজ্জাজনক হতে পারে।  সুতরাং, টমেটোর রস দিয়ে মুখে মালিশ করুন।  টমেটো রসের সাথে লেবুর রস মিশিয়ে মুখে লাগিয়ে নিন। পনেরো থেকে কুড়ি মিনিট রেখে মুখ ঠান্ডা জল দিয়ে ধুয়ে ফেলুন।

ব্ল্যাকহেডস অপসারণ করতে

আপনি কি ব্রণের সমস্যায় ভুগছেন? কোন ব্র্যান্ডের ক্রিম লাগিয়ে ব্রণের সমস্যা থেকে মুক্তি পাছেন না। হাতের কাছেই রয়েছে এমন একটি উপাদান যা চটজলদি ব্রণ দূর করতে সক্ষম। ব্রণের সঙ্গে লড়াই করতে টমেটোর জুরি মেলা ভার।

টমেটো থেকে রস বের করে নিন। এই রসটি পুরো মুখে লাগিয়ে রাখুন ১৫-২০ মিনিট। এতে মুখের তৈলাক্ত পদার্থ দূর হবে। ফলে ব্রণ প্রবণতা কম হবে। শুকিয়ে গেলে ঠাণ্ডা জলে ধুয়ে নিন এবং কোন ময়শ্চারাইজার লাগিয়ে নিন।

চর্মরোগ নিরাময়ে টমেটো

চর্মরোগের জন্য টমেটো অত্যন্ত কার্যকারি উপাদান। আপনার ত্বকে যদি কোনো সমস্যা হয়ে থাকে, তবে টমেটোর ব্যবহার করে দেখতে পারেন। আশা করি উপকার পাবেন। চর্মরোগ নিরাময়ে টমেটোর রস একটি গুরুত্বপূর্ণ উপাদান হিসেবে কাজ করে থাকে। একটি টাটকা টমেটো নিয়ে তার রস করে। তারপর সে রস ত্বকের যে স্থানটি রোগাক্রান্ত সেখানে মাখিয়ে রাখুন। এভাবে দিনে দুই থেকে তিনবার মাখিয়ে রাখলে। দেখবেন আপনার সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।



Comments are closed.