শিবলিঙ্গের আসনে সোমবার করে রাখুন এই জিনিস আপনার কখনও টাকার অভাব হবেনা…

নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে অনেক অনেক ভালোবাসা ও স্বাগতম আমার এই পেজ এ। আশা করবো আমার প্রত্যেক লেখা আপনাদের অনেকটাই উপকার করতে সাহায্য করবে ও আশা করবো অনেকটাই ভালো লাগবে ও নতুন কিছু জানতে পারবেন। আজ ভগবান শিব এর কৃপা পেতে কি কি করবেন তা নিয়ে আলোচনা করবো।

আমাদের সবার জীবনে টাকা ছাড়া কিচ্ছু নেই। বর্তমান যুগে টাকাই সব। অনেকেই বলে মানুষের মনের দাম টাকার থেকে বেশি, কিন্তু এই মতবাদ এখন আর চলেনা। এখন টাকা ছাড়া জীবন ধারন করা খুব কঠিন ব্যাপার। বর্তমান যুগে সেই মানুষ সমাজে বেশি সম্মান পায় যার বেশি অর্থ আছে। অর্থের সাথেই জড়িয়ে আছে আপনার ক্ষমতা, আপনার প্রতিপত্তি। অর্থ উপার্জনের জন্য মানুষ কিনা করে।


শিবপূজার সাধারণ পদ্ধতি এখানে বর্ণিত হল। এই পদ্ধতি অনুসারে প্রতিদিন বা প্রতি সোমবার প্রতিষ্ঠিত শিবলিঙ্গ বা বাণেশ্বর শিবলিঙ্গে শিবের পূজা করতে পারেন। যাঁরা ‘সোমবার ব্রত’ করেন, তাঁরাও এই পদ্ধতি অনুসারে শিবপূজা করে ব্রতকথা পাঠ করতে পারেন। মনে রাখবেন, সাধারণ শিবলিঙ্গ ও বাণেশ্বর শিবলিঙ্গে পূজার মন্ত্র আলাদা। যাঁদের বাড়ীতে বাণেশ্বর আছেন, তাঁরাই বাণেশ্বর মন্ত্রে শিবের পূজা করবেন। অন্যান্য ক্ষেত্রে সাধারণ শিবপূজার মন্ত্রেই পূজা করবেন। শিবরাত্রির দিন বিশেষভাবে পূজা করার নিয়ম আছে। সেই পদ্ধতি পরে দেওয়া হবে।

অনেকে অনেক টাকা রোজকার করে, কিন্তু সেটি যদি তার কাছে না থাকে, যদি জলের মত টাকা বেড়িয়ে যেতে থাকে তাহলে উপার্জনের তো কোন মানেই নেই। আপনি তো কোন সঞ্চয় করতেই পারবেন না। আর ভবিষ্যতের জন্য সঞ্চয় করাটা খুবই জরুরি এর ব্যাপার।

মানুষের জিবনে কখন যে কি ঘটে তা কেউ বলতে পারেনা। জীবনের কোন ভরসা নেই। কখনো রোদ্দুর কখনো ছায়া, কখনো চড়াই কখনো উতরাই। তাই সঞ্চয় অবশ্যই দরকার। ভালো উপার্জন করার জন্য আর আর্থিক অবস্থার উন্নতি করার জন্য প্রায় প্রত্যেকেই মা লক্ষ্মীর পুজো করেন।

অনেকেই জানেন না যে ভগবান শিবকে তুষ্ট করতে পারলেও তার কৃপাদৃষ্টি সব সময় আপনার উপর থাকবে। তার জন্য আপনাকে কিছু নিয়ম পালন করতে হবে। আর সঠিক ভাবে সব নিয়ম পালন করলে আপনার জীবন খুশিতে ভরে উঠবে। আসুন তাহলে জেনে নিন সেই নিয়ম গুলি…

আপনার বাড়িতে যদি শিবের কোন মূর্তি বা ছবি না থাকে তাহলে শ্রাবণ মাসের কোন এক সোমবার দেখে শিবের ছবি বা শিব লিঙ্গ প্রতিষ্ঠা করুন। তারপর মহাদেবের সামনে রাখুন কিছু জিনিস। দেখবেন আপনার জীবনে সুখ সম্মৃদ্ধি আসবেই।

1. সোমবার হল মহাদেবের বার। সেটা যদি হয় শ্রাবণ মাসের সোমবার তাহলে তো খুব ভালো হয়। আর সেই দিন স্নান করে শুদ্ধ বস্ত্রে শিবের সামনে পুজো করতে বসুন।

2. এরপর মহাদেবের সামনে একটি কলাপাতা রাখুন। তার উপর একটি দশ টাকার কয়েন রাখুন। দশ টাকার কয়েনের উপর রাখুন একটি রূপোর কয়েন।

3. রূপোর কয়েনের উপর রাখুন একটি সুপারি। তারপর মনোযোগ সহকারে ১০৮ বার শিব নাম জপ করুন। আর শিবের আরতি করুন।

4. তারপর একটি ঘিয়ের প্রদীপ জালিয়ে আরতি করুন। পাঁচ রকম ফল, ফুল, কুমকুম, আতপচাল, লাল আবির এইসব দিয়ে ভক্তি ভরে পুজো করুন।

সোমবার পুরো দিনটি কয়েনগুলো মহাদেবের সামনেই রাখুন, পরের দিন আসন থেকে তুলে একটি শুদ্ধ লাল কাপড়ে বেধে আপনার টাকা রাখার জায়গাতে সেটি রেখে দিন। এইভাবে ছয়মাস করুন, আর্থিক ফল পাবেন। তবে মনে রাখতে হবে, বিশ্বাস অবশ্যই দরকার।



Comments are closed.