কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা ৬ টি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়

নমস্কার বন্ধুরা আমি শান্তনু আপনাদের সবাইকে অনেক অনেক ভালোবাসা ও স্বাগতম আমার এই পেজ এ। আশা করবো আমার প্রত্যেক লেখা আপনাদের অনেকটাই উপকার করতে সাহায্য করবে ও আশা করবো ভালো লাগবে আপনাদের। আপনাদের সকলের সুস্থতা কামনা করি। বন্ধুরা আমরা এখন কম্পিউটার এর ব্যাপারে সবাই জানি। কান্না এটা ছাড়া র কিছুই নাই জীবনে। কম্পিউটার না জানলে ওই কাপড়ের দোকানে বা কোনো শপিং মল এ কাজ করতে হবে সেলস এ। কম্পিউটার আর ইংলিশ এখন আমাদের দৈনন্দিন জীবনে অনেকটাই দরকার।


বর্তমান বিশ্বের বিস্ময় হল কম্পিউটার। এটি একটি স্বয়ংক্রিয় যন্ত্র। এই টেকনোলজি আমদের কাজের আরও সুবিধা করে তুলছে। বর্তমানে এই টেকনোলজির মাধ্যমে কর্মসংস্থান বেড়েছে। ঘর হোক বা বাইরে এর কদর সর্বত্রই। বর্তমানে কম্পিউটারের প্রভাব বিশাল। মানুষ এই যন্ত্রটি নানা কা জে ব্যবহার করে থাকে। এর মাধ্যমে দ্রব কেনা বেচা, অনলাইন স্টাডি, টিকিট বুক করা, অনলাইনে কেনাকাটা বা অফিসের সমস্ত রকম কাজ করে থাকে।
কম্পিউটার টেকনোলজি শিক্ষার উপরে একটি গুরুত্বপূর্ণ প্রভাব ফেলেছে। শিক্ষার্থীরা অনলাইনে স্টাডিজ করতে পারে বা ঘরে বসে জ্ঞান অর্জন করতে পারে। কম্পিউটারের ব্যবহার সুবিধার পাশাপাশি কিছু অসুবিধাও বিরাজমান। এখানে রইল ৫ টি কম্পিউটার এর সুবিধা –

কম্পিউটারের সুবিধা

কম্পিউটার দ্রুত বিশাল পরিমাণ তথ্য প্রস্তুত করতে পারে। মানবজাতির থেকেও বিভিন্ন কাজ সাফল্যের সঙ্গে সম্পূর্ণ করতে পারে। সুতরাং বলাই যায় কম্পিউটার আমাদের কাজের দক্ষতা বৃদ্ধি করে। নীচে কম্পিউটারের সুবিধা উল্লেখ করা হল-

গবেষণার কাজে

কম্পিউটারের মাধ্যমে আপনি যেকোনো ক্ষেত্র সার্চ করলে খুঁজে পাবেন। এই মাধ্যমে আপনি ক্যালকুলেশন, ডাটা সঞ্চয় করতে এবং যেকোনো ডাটা উপস্থাপন করতে পারবেন। বিজ্ঞানীরা তাদের গবেষণায় কম্পিউটার ব্যবহার করে।

ইন্টারনেট এর সুবিধা

কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা আলোচনার ক্ষেত্রে সুবিধার একটি বড় অংশ হল ইন্টারনেট। আধুনিক যুগে ইন্টারনেট একটি মূল্যবান কৌশল। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে বিশ্বের প্রতিটি স্থানের সঙ্গে যোগসূত্রে আবদ্ধ হতে পারবেন।
ইন্টারনেটের দ্বারা বিদেশে বন্ধুবান্ধব, আত্মীয়স্বজনের সঙ্গে ভিডিও চ্যাট করতে পারবেন। এছাড়াও নেট সার্চ, সিনেমা ও গেমস খেলতে পারবেন। এটি সর্বশ্রেষ্ঠ কম্পিউটারের সুবিধা বলে বিবেচনা করা হয়।

মাল্টিমিডিয়া

কম্পিউটারের আরেকটি সুবিধা মাল্টিমিডিয়া ডিভাইস। এতে বিভিন্ন ধরণের অ্যাপ্লিকেশন ব্যবহার করতে পারি যেমন- গান শোনা, গেমস খেলা ইত্যাদি।

তথ্য জমা রাখা

কম্পিউটারে প্রচুর পরিমাণ তথ্য জমা রাখতে পারবেন। বড় বড় কোম্পানিগুলি তাদের মার্কেটিং এর তথ্যগুলি কম্পিউটারে জমা করে রাখে। এমনকি গ্রাহকদের সংবেদনশীল তথ্য সুরক্ষিতভাবে রাখার জন্য কম্পিউটারাইজড করে রাখে।

অনলাইন বাণিজ্য

বিশ্বের ৬০ শতাংশ মানুষ অনলাইন বাণিজ্যের জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকে। তারা কম্পিউটার ও ইন্টারনেট ব্যবহার করছেন তাদের পণ্য কেনা বেচার জন্য।
অনলাইনে ব্যবসা করা এখন অনেক সোজা পাশাপাশি সময় সঞ্চয় হয়। অনেক ওয়েবসাইট তাদের গ্রাহকদের জন্য ডিসকাউণ্ট দিয়ে থাকেন। যার ফলে অনলাইন কেনাকাটার প্রতি মানুষের ঝোঁক এখন বেশি।

কম্পিউটারের অসুবিধা

কম্পিউটার ব্যবহারে সমাজে কিছু সমস্যার সৃষ্টি হয়েছে। কম্পিউটার এর সুবিধা ও অসুবিধা আলচনায় কম্পিউটার অসুবিধা নিম্নরূপ-

স্বাস্থ্যের ক্ষতি

দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহার করলে চোখের উপর নেতিবাচক পড়ভাব পড়ে। চোখের পেশিতে চাপ পড়ে ফলে চোখের ক্ষতি হয়। তাছাড়াও দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহারের ফলে ঘাড় ও মস্তিষ্কের ক্ষতি হতে পারে। তাই যারা দীর্ঘক্ষণ কম্পিউটার ব্যবহার করেন তাদের ৩০ মিনিট অন্তর বিশ্রাম নেওয়া প্রয়োজন।

পরিবেশের উপর নেতিবাচক প্রভাব

কম্পিউটার উৎপাদন প্রক্রিয়া এবং কম্পিউটার বর্জ্য পরিবেশ দূষণ করা হয়। কম্পিউটারের নষ্ট পার্টগুলি থেকে বিষাক্ত উপাদান পরিবেশে ছড়াতে পারে।

শক্তি ও সময় অপচয়

অনেক মানুষ গেম খেলতে ও দীর্ঘসময় চ্যাট করার জন্য কম্পিউটার ব্যবহার করে থাকে। এতে সময় ও শক্তি অপচয় হয়। তরুন প্রজন্ম এখন দিনের বেশিরভাগ সময়টা সোশ্যাল মিডিয়ায় ( যেমন- ফেসবুক, টুইটার ইত্যাদি ) ব্যস্ত থাকে। এটি স্বাস্থ্যের জন্য খারাপ। পাশাপাশি সামাজিক জীবনে প্রতিকূল প্রভাব পড়ছে।



Comments are closed.