দাঁত ও হাতের নখের ফুল থাকলে কি হয়

একজন মানুষের শরীর স্বাস্থ্য, মন ও ব্যক্তিত্ব সম্পর্কে জানা যায় হাতের নখ দেখেই। প্রতিটি মানুষের নখের আকৃতি, রঙ ও চন্দ্রিমার ধরণ আলাদা। ডাক্তাররাও রোগীর শরীরের রক্তসঞ্চালন বুঝতে নখের দিকে খেয়াল করেন। এছাড়াও একজন মানুষ কতটা সৌভাগ্যবান তা সম্পর্ককেও পূর্বাভাস পাওয়া যায় নখ দেখে।মানবদেহের ভেতরে রোগের প্রতিফলন ঘটে শরীরের বাহ্যিক নানা লক্ষণের মাধ্যমে। অনেক সময় দাঁত ও নখের উপর তৈরি হওয়া সাদা ছোপ ছোপ দাগ রোগের কারণ হতে পারে। সম্প্রতি মান্থলি হেলথ জার্নাল অফ টরোন্টোতে এই বিষয়ে বিশেষ প্রতিবেদন প্রকাশ করেছে।

অনেকের নখের ওপর হঠাৎ করে ক্ষুদ্র সাদা দাগ দেখা যায়। তখন মনের মধ্যে কৌতূহল জাগাটাই স্বাভাবিক। ছোট বড় সবার ক্ষেত্রেই নখে সাদা দাগ (স্পট) দেখা যেতে পারে। কারো কারো নখে কালো স্পট ও দেখা যেতে পারে। সাদা স্পট যতটা বেশি চোখে পড়ে কালো স্পট সচরাচর সবার চোখে পড়ে না। শরীর ও মনের বিভিন্ন অবস্থা পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে তা নখের মাধ্যমেও প্রকাশ পায়।

জ্যোতিষশাস্ত্র মতে নখের এ বিশেষ পরিবর্তনগুলোকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হয়। আজকের পর্বে চলুন দেখে নেওয়া যাক নখে সাদা ও কালো দাগ থাকলে কী হয়।

যে কারণে দাঁতের উপরে সাদা দাগ

যে কারণে দাঁতের উপরে সাদা দাগ–  যদিও বাচ্চাদের দাঁতের মধ্যে এই ধরনের দাগ সাদা দেখা যায়। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই দাগ মিলিয়েও যায়। কিন্তু প্রাপ্তবয়স্ক মানুষদের দাঁতে এই সাদা দাগ সাধারণ ভাবে এনামেল ঘটিত সমস্যাকে চিহ্নিত করে। ডাক্তারি পরিভাষায় এই রোগের ন‌াম ‘এনামেল হাইপোপ্ল্যাসিয়া’। এটা দাঁতের ক্ষয়ের প্রথম লক্ষণ। এই রোগের কোন ঘরোয়া প্রতিকার খুঁজে পাওয়া মুশকিল। ক্যালসিয়াম পাউডার দিয়ে নিয়মিত দাঁত মাজলে কিছুটা প্রতিকার সম্ভব। ফলে দাঁতের ডাক্তারের দ্বারস্থ হওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। এছাড়া অনেক সময়ে ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগের কারণেও দাঁতে এরকম সাদা দাগ দেখা দিতে পারে। তাকে বলা হয় প্লাক।

যদিও শিশুদের দাঁতের মধ্যে এই ধরনের দাগ সাদা দেখা যায়। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে এই দাগ মিলিয়েও যায়। কিন্তু প্রাপ্তবয়স্ক মানুষদের দাঁতে এই সাদা দাগ সাধারণ ভাবে এনামেল ঘটিত সমস্যাকে চিহ্নিত করে। ডাক্তারি পরিভাষায় এই রোগের ন‌াম ‘এনামেল হাইপোপ্ল্যাসিয়া‘। এটা দাঁতের ক্ষয়ের প্রথম লক্ষণ। এই রোগের কোন ঘরোয়া প্রতিকার খুঁজে পাওয়া মুশকিল। ক্যালসিয়াম পাউডার দিয়ে নিয়মিত দাঁত মাজলে কিছুটা প্রতিকার সম্ভব। ফলে দাঁতের ডাক্তারের দ্বারস্থ হওয়াই বুদ্ধিমানের কাজ। এছাড়া অনেক সময়ে ব্যাকটেরিয়া ঘটিত রোগের কারণেও দাঁতে এরকম সাদা দাগ দেখা দিতে পারে। তাকে বলা হয় প্লাক।

যে কারণে নখের গোড়ায় সাদা দাগ

নখের ফুল থাকলে কি হয় ? সাধারণত কোন আঘাতজনিত কারণে অধিকাংশ সময়েই নখের উপর এই ধরনের দাগ তৈরি হয়। যার হাতে আঘাত লাগছে, তিনি অনেক সময় টেরও পান না যে আঘাত লেগেছে। কিন্তু পরে নখের উপর দেখা দেয় ওই সাদা দাগ। এছাড়া নখের উপর সাদা দাগের সৃষ্টি হতে পারে শরীরে জিংকের অভাবের কারণে। জিংকের অভাবের ফলে তৈরি হওয়া এই ধরনের দাগকে বলা হয় ‘লিউকোনিচিয়া‘। জিংকের অভাবের কারণে আপনার শরীরে কোন ক্ষত শুকোতে যেমন সময় লাগে, তেমনই মুখের ভিতর কিংবা অন্য কোন স্পর্শকাতর জায়গায় দেখা দিতে পারে ঘা বা আলসার। এছাড়া জিংকের অভাবের ফলে দেখা দেয় নারী পুরুষের যৌন সমস্যাও। জিংকের অভাব মেটাতে ডিম, মাছ, দুধ, বিনস, বাদাম এবং মুসুর ডালের মতো খাবার অত্যন্ত উপকারী। কাজেই নখে যদি এই রকম সাদা দাগ দীর্ঘদিন ধরে থেকে যায়, তাহলে অবিলম্বে এই জাতীয় খাবার খাওয়া শুরু করাই বুদ্ধিমানের কাজ।

1. ভাগ্যের পূর্বাভাস হিসেবে, বৃদ্ধাঙ্গুলের নখে এ চিহ্ন থাকলে ভালোবাসার মানুষকে কাছে পাওয়ার পূর্বাভাস দেয়।

2. তর্জনী আঙুলের নখে সাদা দাগ থাকলে ব্যবসায়ে লাভের সম্ভাবনা। কোনো উৎস থেকে অর্থ প্রাপ্তির সম্ভাবনা।

3. মধ্যমা আঙুলের নখে সাদা দাগ থাকলে গুরুজনের সান্নিধ্য লাভ ও শিগগির ভ্রমণ হতে পারে।

4. অনামিকা আঙুলের নখে সাদা দাগ থাকলে জীবনে সফলতা অর্জনের পূর্বাভাস দেয়।

5. কনিষ্ঠাতে থাকলে জীবনের বিশেষ কোনো লক্ষ্য অর্জন হতে চলেছে বোঝায়।

নখের ওপর কালো দাগ থাকলে

 
শারীরিক অবস্থা পরিবর্তনের সঙ্গে সঙ্গে নখের অবস্থাও পরিবর্তন হয়। অনেক রোগ সম্পর্কে পূর্বাভাস পাওয়া যায় নখ দেখে। ম্যালেরিয়া, টাইফয়েড ও গুটিবসন্ত রোগীদের নখের ভেতর কালো দাগ দেখা যায়। যেটা দূষিত রক্তের প্রভাবে হয়ে থাকে। এ ধরনের চিহ্ন ধীরে ধীরে আবার মিলে যায়।

1.ভাগ্যের পূর্বাভাসের ক্ষেত্রে হাতের বৃদ্ধাঙ্গুলের নখে যদি কালো স্পট দেখা যায় তবে নানাধরনের সমস্যার পূর্বাভাস দেয়। অপরাধপ্রবণ মানুষের বৃদ্ধাঙ্গুলে এ চিহ্ন দেখা যায়।

2. তর্জনি আঙুলের নখে কালো দাগ থাকলে ব্যবসায়ে ক্ষতির আশংকা বোঝায়।

3. মধ্যমা আঙুলের নখে কালো দাগ থাকলে পরিবারের কোনো সদস্যের মৃত্যুর আশংকা বোঝায়। কারো কারো ক্ষেত্রে গুরুজনের সঙ্গে সম্পর্ক দুরত্ব কিংবা পারিবারিক সমস্যা বোঝায়।

4. অনামিকা আঙুলের নখে কালো দাগ থাকলে সুনামহানি কিংবা অপবাদের আশংকা থাকে।

5. কনিষ্ঠা আঙুলের নখে কালো দাগ থাকলে লক্ষ্যহীন ঘুরে বেড়ানো বোঝায়। এ ধরনের ক্ষেত্রে সচেতনতা অবলম্বন করলে নেতিবাচক প্রভাব এড়ানো যেতে পারে।

Comments are closed.