Sad Quotes Bangla – মন খারাপের কথা

চাণক্য শ্লোকে বলছে আমদের জীবনে সুখ এবং দুঃখ  আমদের জীবনে একটি সদা পরিবর্তনশীল একটি ঘটনা। মানে সকালবেলা জানি সন্ধ্যে হবে, আবার সন্ধ্যে বেলাতেও জানি রাতটা গভীর কালো হবে। আমাদের জীবনে যতক্ষণ আমরা হাসছি সুখে আছি মানে দিনের আলোতে আছি । জানি সুখ চিরস্থায়ী নয় আসবে আঁধার কালো রাত দুয়ারে কড়া নাড়বে কঠিন সময়। আমাদের ফেলবে ফাঁপরে। তখন মাঝে মধ্যে মনে মনে বলে উঠবো, “আমার হাসি পাচ্ছে না।” আমরা দুঃখে থাকবো, রোজ রাতে বালিশ ভেজাবো।চেঞ্জটা আসবেই। কালবেলা উপন্যাসে অনিমেষের দাদু অনিমেষকে বলেছিলেন, “চেঞ্জ ইস দা অনলি কন্সট্যান্ট।” জীবন চাকা ঘুরবেই। এই জীবনের সাঁতারে  এগোবে সবাই তাদের নিজস্ব গতিবেগে। লেখাটা এতক্ষন পড়ে বুঝতে পারছেন এখানে হাসি মজার কথা বলা হবে না। এই লেখা আমাদের জীবনে মাঝ্রাতের ভেজা বালিশগুলোর, এই লেখা আমাদের চোখের তলার ডার্ক সারকেল গুলোর, এই লেখা দুঃখের। তবে সেই এক্কেবারে রুমাল ভেজানো ফ্যাচফ্যাচানি না । আমাদের ব্যর্থতা আমাদের ব্যাথিত করে আমরা ডুকরে কেঁদে উঠে বলি, “why always me?” এই কথাটা একবারও বলেছেন সুখের দিনে? না বোধহয়। মানুষ সফল সেই যে সুখে এবং দুঃখে সমান ভাবে আচরণ করেন। সুখ আমদের সেলিব্রেট করতে শেখায়, সুযোগ দেয় কাছের মানুষগুলোকে বেঁধে রাখার। আর দুঃখ শেখায় লড়াই, দুঃখ চেনায় মানুষ। তাই দুঃখের সময় প্রয়োজন। জীবনের চড়াই উতরাই পথে সুখ দুঃখ যাই  আসুক না কেন মন্ত্র থাক , “রুক জানা নেহি তু কাভি হারকে।” দুঃখে হাসি মুখটা রাখলেও সময়ের কাঠিন্য কমেও না তা সত্যি।

Sad Quotes Qangla – মন খারাপের কথা

দুঃখ আসার পথ কি আর একটা মশাই? পাস্কালের সর্বমুখী চাপের সুত্র মেনে আছড়ে পড়ে চারদিক দিয়ে। বেসিক কটা বলি বিচ্ছেদ, কিছু চেয়ে না পাওয়া, কিছু হারিয়ে যাওয়া কষ্টের কি কারণ একটা। কিন্তু একবার চিন্তা করুন আপনি কোনওদিন ভেবেছেন এই ছোট জীবনে কত কি দেখা হলো না, কত কাজ করা হলো না, কত চোখের কান্না  মোছানো হল না। দুঃখের সময়ে পাশে দাঁড়ালে অন্যের আর নিজের দুজনের আরাম হয়। দুঃখকে চিনে নিতে বুঝে নিতে রইল sad quotes in bangla। আপনার জন্য  রইল কিছু লাইন যা আপনাকে মনে করাবে সেই সব দিনের কথা যখন বালিশ ভিজত অনিয়মেই। আপনি পড়ে ভাববেন, “হুফ! কিছু লড়াই ছিল। মনখারাপ কে চিনতে শেখাবে ।আপনি পাশে দাঁড়াবেন,  তাদের যাদের আপনাকে সত্যি দরকার। আপনাকে বুঝিয়ে দেবে যে আপনি একা নন আরো অনেকে আছে যারা রোজ লড়ছে ঠিক আপনার মতোই।
রইল তাই কিছু ভেজা কলার আর স্মাজড কাজলের গপ্পো।
মনখারাপের গপ্পোতে

1. ডিপ্রেশন- শ্রীজাত  বন্দ্যোপাধ্যায়

   

দেখতে গিয়ে সন্ধ্যে হলো জানলাতেই,
আগের মতো মেঘ করেছে কান্না নেই।
কেবল মুঠোয় বন্দি কফির একলাকাপ,
ডিপ্রেশনের বাংলা জানি মনখারাপ।
 আমাদের বন্ধুরা একটা সময়ের পর আলাদা হয়ে যায়। আমাদের কষ্টগুলো ভাগাভাগি হয় না সময়ের অভাবে। তখন মন ভালো নেই । তখন একলা একদম, একলা হরদম।

2. কিছু তো হল না এ জীবনে


“দেখা হয় নাই চক্ষু মেলিয়া
 ঘর হইতে দু পা ফেলিয়া
 একটি ধানের শিষের উপর
  একটি শিশির বিন্দু।।”
-রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর
আমাদের মনখারাপ হয় তখন যখন আমাদের মনের মধ্যে এক সুর বাজে , “ কত কি করার ছিল যে”।
মনখারাপ হয়। আমাদের কষ্ট হয় জাগে দুঃখ , হয় আপশোষ।

3.  স্বপ্নে আজও বালিশ ভেজে রাত কাঁদে  


স্বপ্নে তোকে এগিয়ে দিই যদি

তোর বরের তাতে কি যায় আসে?

সত্যি বলছি, বিশ্বাস করবি না

স্বপ্নে আমার চোখেও জল আসে!

  • জয় গোস্বামী

         [স্বপ্নে]
আমাদের প্রিয়জন ছেড়ে চলে গেলে কষ্ট হয়। বিচ্ছেদে সুখ  আছে একথা বড্ড রোম্যান্টিক। কষ্ট আছে অনেকটা ব্যাথা আছে প্রচুর।

4.  হাসিতে লুকিয়ে রাখা বেদনারা

  হাসি দিয়ে যদি লুকালে তোমার সারা জীবনের বেদনা,

   আজো তবে শুধু হেসে যাও, আজ বিদায়ের দিনে কেঁদো না।”
– কাজী নজরুল ইসলাম
[ বিদায়বেলায়]
কেউ ছেড়ে চলে গেলে কান্না আসে বুকে আছড়ে  পড়ে অনেক গুলো সাগর-মহাসাগর। সে কষ্টকে জয় করেও হাসি নিয়ে চলে যেতে পারাটা একশক্ত শিরদাড়ার কাজ। সবাই হাসি মুখে যেতে পারেনা, এটা করতে পারা একটা আর্ট।

5. তোর পালিয়ে যাওয়ার পুরোনো অভ্যেস


”নাকচোখমুখকান দিয়ে হু-হু করে

 শরীরে তখন ঈশ্বর ঢুকছেন—

 শীতের সন্ধে। আটটা সতেরো বাজে।

কলকাতা ছেড়ে উড়ে গেছে তোর প্লেন…”
-শ্রীজাত বন্দ্যোপাধ্যায়
সুটকেসভর্তি শূন্যতা নিয়ে শহর ছেড়ে চলতে হয় অনেককে । জীবন জোয়ারে ভাসতে হবে। কিন্তু এতে পিছনে ফেলে আসা বন্ধুদের মন ভাঙে। এ যেন তাহাদেরই কথা।


6. একলা মন প্রাসাদেতেও শান্ত হয় না। .

তাঁর জন্য ঐ দূর মাঠের রোদ্দুরেও ছিলো জ্বালা

  কিছুটা রোদ্দুরে হেঁটে, খালি পায়ে পড়েছেন শুয়ে –

  নিদ্রা নয়, ধ্যান নয়, বেদনার ব্যথার ভিতরে

  মনোকষ্ট বুকে নিয়ে শুয়ে রয়েছেন একা একা ।”
-শক্তি চট্টোপাধ্যায়

মানুষ তার লড়াই তে খুঁজে চলে অরুপ রতন। পায় না সেই না পাওয়া আনে দুঃখ সেখান থেকে আসে মনোকষ্ট।

7. তোমার কাছে আমার দাম নেই জানি

“তুমি শোনো না আমার কথা
   তুমি দেখোনা আমার চোখ
    মুখে জমে থাক নীরবতা
    বুকে নিবিড় রাত্রি হোক।”
– লোপামুদ্রা মিত্র
আমাদের বুকের জমে থাকা ক্তহারা আমদের মনের ওজনকে করে ভারি আমরা  বাঁচি কষ্টে। আমরা হই ভারাক্রান্ত।

8.বন্ধুহীনের কষ্ট সবচেয়ে বেশি

দুঃখ কিসে হয়?

 অভাগার অভাবে জেনো শুধু নয়।

 যার ভাণ্ডারে রাশি রাশি

 সোনা দানা ঠাসা ঠাসি

 তারও ভয়।

 জেনো সেও সুখী নয়

  সুখী নয়।”

-সত্যজিৎ রায়
আমরা ভাবি আমাদের কষ্টের কথা আমাদের ব্যাথার কথা । একলা নয় কেউ। দুঃখে কাঁদছে অনেকেই

9 .  চলে যাওয়ার গান

আমার আকাশকুসুম স্বপ্ন দেখার
খেলা থামেনি।
শুধু তুমি চলে যাবে, আমি স্বপ্নেও ভাবিনি।”
– অঞ্জন দত্ত
আমাদের জীবনে কিছু স্তম্ভ থাকে ।যারা চলে গেলে জীবন হয় নিস্তব্ধ, কালো ।সেই আশারা চলে গেলে ভেঙে যায় আমাদের চারপাশ

10. হাজারের ভিড়ে এক্কেবারে একলা এখন

বহুতল স্বপ্নের মতো,
কে কোন তলায়
কে তা জানে
আমার দখলে শুধু,
এক শূন্যস্থান এখানে।”
-নচিকেতা
আমাদের সবচেয়ে বেদনার ঝড় তখন নামে যখন আমাদের বড়রা ,বুড়ো হওয়ার পর আমাদের ছেড়ে নিয়ম মেনে চলে যান। সেই কষ্ট থেকে উঠে দাঁড়ানো খুব কঠিন। তবু কঠিন পথ অতিক্রম করার আরেক নাম তো জীবন।

শেষ কথা 

একবার  সম্রাট আকবর বীরবল কে বলেছিলেন আমায় এমন কিছু লিখে দাও যা আমায় সুখে কাঁদাবে, দুঃখে একটু হলেও হাসাবে। বীরবল লিখে দিয়েছিলেন , “ইয়ে ওয়াক্ত গুঝার জায়গা।” রাত চলে যাবে ,আবার এই বিচ্ছিরি  পৃথিবীতে আর একটা সকাল আসবে। ঘুম থেকে উঠে আবার লড়তে হবে। আমাদের দুঃখ থাকবে জীবন থাকবে আর সেই জীবনে আবার সুখ আসবে। ততদিন “ অন্তবিহীন পথে চলাই জীবন, শুধু জীবনের কথা বলাই জীবন।”আর থাক দাঁতে দাঁত চাপা লড়াই সুখের দিন টার জন্য।  

লেখক – রাহুল পাঠক 


Comments are closed.